হোয়াটসঅ্যাপে আসবে ফেসবুকের ফিচার


Sarsa Barta প্রকাশের সময় : জুলাই ২৭, ২০২২, ৬:৪৩ অপরাহ্ণ /
হোয়াটসঅ্যাপে আসবে ফেসবুকের ফিচার

নতুন ফিচার আনছে হোয়াটসঅ্যাপ। তবে এ ফিচার ফেসবুকেও ভিন্নভাবে দেখেছিল ব্যবহারকারীরা। হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজিং অ্যাপে যুক্ত হয়েছে অ্যাভাটার বিভাগ। জানা গেছে, অ্যাভাটার বিভাগের জন্য কাজ শুরু করেছে জনপ্রিয় এ মেসেজিং কোম্পানি। ফেসবুকের মেসেঞ্জারে ঠিক যেভাবে অ্যাভাটার তৈরি করা যায় এবার হোয়াটসঅ্যাপেও একই কাজ করা যাবে।

সাম্প্রতিক বেটা ভার্সনে এ ফিচার যুক্ত হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ছাড়া ভিডিও কলের সময় নিজেকে মুখোশের পেছনে নেওয়ার জন্য বিশেষ ফিচার আনছে হোয়াটসঅ্যাপ। ভবিষ্যতে আপডেটের মাধ্যমে এই ফিচার মেসেজিং প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হতে পারে। যদিও হোয়াটসঅ্যাপে অ্যাভাটার বিভাগ প্রসঙ্গে এখনো মুখ খোলেনি মার্কিন সংস্থাটি।

একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত রিপোর্ট অনুযায়ী, শিগগির আপডেটের মাধ্যমে হোয়াটসঅ্যাপের ভেতরে পৃথক অ্যাভাটার বিভাগ যুক্ত হতে চলেছে। বেটা আপডেটের মাধ্যমে ইতোমধ্যেই পরীক্ষামূলকভাবে নির্বাচিত গ্রাহকদের কাছে এই ফিচার পাঠাতে শুরু করেছে হোয়াটসঅ্যাপ। এই ফিচার ব্যবহার করে নিচের ভার্চুয়াল অ্যাভাটার তৈরি করা যাবে। যা স্টিকার হিসেবে শেয়ার করা যাবে।

অ্যান্ড্রয়েড ফোনের বেটা ভার্সনে আপাতত এই ফিচার এসেছে। জানা গেছে, পৃথক এই ফিচারে ভিডিও কলের সময় মুখোশের পেছনে নিজেকে লুকিয়ে রাখার সুযোগ পাবেন গ্রাহকরা। এখনো অফিসিয়ালি এই ফিচার ঘোষণা করেনি হোয়াটসঅ্যাপ। বর্তমানে ডেভেলপমেন্টের পর্যায়ে রয়েছে ফিচারটি। কবে সব গ্রাহকের ফোনে এই ফিচার পৌঁছবে সেই বিষয়েও কোনো নির্দিষ্ট তথ্য সামনে আসেনি।

তবে ওই ওয়েবসাইটে অ্যাভাটার বিভাগের একটি স্ক্রিনশট প্রকাশ্যে এসেছে। স্ক্রিনশটে কয়েকটি অ্যাভাটারের নিচে নিজের পৃথক অ্যাভাটার তৈরির অপশন দেখা গেছে। এ ছাড়া সাম্প্রতিক রিপোর্টে জানা গেছে, মেসেজের পর এবার স্ট্যাটাসেও রি-অ্যাকশন ফিচার আনছে হোয়াটসঅ্যাপ। ইতোমধ্যেই বেটা ভার্সনে এই ফিচার পৌঁছেছে। একই সঙ্গে উইন্ডোজ অ্যাপের জন্য গ্যালারি ভিউ আপডেট করছে মেসেজিং অ্যাপটি।

সম্প্রতি হোয়াটসঅ্যাপ নিয়ে গ্রাহকদের সতর্ক করেছেন সংস্থাটির সিইও উইল ক্যাথকার্ট। সম্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি টুইট করেন তিনি। সেখানে ব্যবহারকারীদের কাছে বলেছেন, বর্তমানে উইল ক্যাথকার্ট হোয়াটসঅ্যাপের মতোই দেখতে কয়েকটি নকল হোয়াটসঅ্যাপ বাজারে এসেছে। সেগুলো যেন কোনোভাবেই কেউ না ইনস্টল করেন। ভুয়া অ্যাপ ইনস্টলের ফলে বড়সড় সমস্যায় পড়তে পারেন ব্যবহারকারীরা।

%d bloggers like this: