যশোর জেলা পরিষদ নির্বাচনে পুনরায় পিকুল চেয়ারম্যান নির্বাচিত


Sarsa Barta প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৭, ২০২২, ৯:৫২ অপরাহ্ণ /
যশোর জেলা পরিষদ নির্বাচনে পুনরায় পিকুল চেয়ারম্যান নির্বাচিত

“যশোরের শান্তিপূর্ণভাবে জেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী সাইফুজ্জামান পিকুল চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি ঘোড়া প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৯৫৭। সোমবার (১৭ অক্টোবর) সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ২ টা পর্যন্ত উৎসবমুখর পরিবেশে বিরতিহীনভাবে চলে এ ভোটগ্রহণ। ইভিএমের মাধ্যমে ভোট দেন জনপ্রতিনিধি ভোটাররা।

যশোর জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শেষে দুপুরের পরপরই ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। তার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী মারুফ হাসান কাজল আনারস প্রতীকে ৩৪৪ ভোট পেয়েছেন। এছাড়াও সাধারণ সদস্য পদে নির্বাচিত হলেন যারা এক নম্বর ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে শার্শা উপজেলায় দুইজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

এ নির্বাচনে সালেহ্ আহমেদ মিন্টু তালা প্রতীকে ৭৩ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন সহিদুল আলম (টিউবওয়েল) পেয়েছেন ৬৭ ভোট।পাঁচ নম্বর ওয়ার্ড বাঘারপাড়ায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এ নির্বাচনে সদস্য পদে টিউবওয়েল প্রতীক নিয়ে ৭৯ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেন আওয়ামীলীগ নেতা সাইফুজ্জামান চৌধুরী ভোলা। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক ত্রাণ ও দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক শেখ ইউনুছ আলী হাতি প্রতীক নিয়ে ৫৩ ভোট পেয়েছেন।

এছাড়া বাঘারপাড়া চৌরাস্তা বাজার কমিটির সভাপতি জয়নাল আবেদিন সিলিং ফ্যান প্রতীকে পেয়েছেন এক ভোট। অপর প্রার্থী তালা প্রতীকের উপজেলা মৎস্যজীবি লীগের সাধারণ সম্পাদক রাকিব হাসান শাওন কোন ভোট পাননি। ঝিকরগাছায় (২ নং ওয়ার্ড) রফিকুল ইসলাম বাপ্পী ৮৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইমামুল হাবিব জগলু ৬৩ ভোট পেয়েছেন। সোমবার যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলা পরিষদের অডিটোরিয়ামে জেলা পরিষদের নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার সৌমেন বিশ্বাস জানান – জেলা পরিষদের সদস্য পদে ২ নং ওয়ার্ড ঝিকরগাছা উপজেলা থেকে নির্বাচিত হয়েছেন রফিকুল ইসলাম বাপ্পী। তিনি টিউবওয়েল প্রতীকে নির্বাচিত হয়েছেন। তার প্রাপ্ত ভোট ৮৮। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইমামুল হাবিব জগলু পেয়েছেন ৬৩ ভোট। এ পদে ৪ জন্য প্রার্থী নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন। ১৫৯ জনের মধ্যে ১৫৮ জন ভোটার ভোট দিয়েছেন। অপরজন বিদেশ যাওয়ায় ভোটে অংশ নেননি।

তিন নম্বর ওয়ার্ড চৌগাছায় সদস্য পদে তৌহিদুর রহমান (হাতি মার্কা) ৭৪ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আহসান হাবীব বাবু (তালা মার্কা) ৪২, কামারুজ্জামান (টিউবওয়েল মার্কা) ৪০, আসাদুল ইসলাম আসাদ (ফ্যান মার্কা) ২ ভোট পেয়েছেন। চার নম্বর ওয়ার্ডে (অভয়নগর) বিজয়ী হয়েছেন আব্দুর রউফ মোল্লা। ছয় নম্বর ওয়ার্ড যশোর সদরে সদস্য পদে বিজয়ী হয়েছেন শ্রমিক লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) জবেদ আলী।

সাত নম্বর ওয়ার্ড মণিরামপুরে সদস্য পদে বিজয়ী হয়েছেন গৌতম চক্রবর্তী। আট নম্বর ওয়ার্ড কেশবপুরে সদস্য পদে বিজয়ী হয়েছেন আজিজুল ইসলাম। জেলা পরিষদ নির্বাচন চৌগাছায় সাইফুজ্জামান পিকুল (ঘোড়া মার্কা) ১৩৬, কাজল ( আনারস মার্কা) ২২, সদস্য পদে দেওয়ান শ্যায়লা জেসমিন (মাইক মার্কা) ১৩৯, শাহানা (ফুটবল মার্কা) ১৭।”

%d bloggers like this: