বাংলাদেশে নেপালী বিদ্যুৎ বিক্রির প্রস্তাবকে বিবেচনা করছে দিল্লী


Sarsa Barta প্রকাশের সময় : জানুয়ারি ২২, ২০২৩, ১০:১৬ অপরাহ্ণ /
বাংলাদেশে নেপালী বিদ্যুৎ বিক্রির প্রস্তাবকে বিবেচনা করছে দিল্লী

ভারতীয় ভূখণ্ড ও অবকাঠামো ব্যবহার করে ঢাকার কাছে বিদ্যুৎ বিক্রির নেপাল ও বাংলাদেশের প্রস্তাব বিবেচনা করছে নয়াদিল্লি। প্রস্তাবে ভারত সায় দিলে তা উপ-আঞ্চলিক সহযোগিতাকে আরও ব্যাপকভাবে বাড়িয়ে তুলতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে। শনিবার ভারতের বিদ্যুৎ বিভাগের সূত্রের বরাত দিয়ে দেশটির সংবাদমাধ্যম ইকোনমিক টাইমসের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

বিষয়টির ব্যাপারে অবগত ভারতীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, প্রাথমিকভাবে বাংলাদেশে ৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রপ্তানি করবে নেপাল। এর মাধ্যমে ২০২১ সালে ভারতের কাছে বিদ্যুৎ বিক্রি শুরুর পদক্ষেপের পটভূমিতে নেপালের অর্থনৈতিক পরিস্থিতিতে বড় ধরনের সাফল্য যোগ হবে।
নেপালের বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ (এনইএ) বলেছে, তারা বাংলাদেশে ৪০ থেকে ৫০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ রপ্তানির জন্য ভারতীয় কর্তৃপক্ষের কাছে অনুমোদন চেয়ে আবেদন করেছে।

এই বিষয়ে ভারত ও নেপালের বিদ্যুৎ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের আগামী মাসে নয়াদিল্লিতে বৈঠকে বসার সম্ভাবনা রয়েছে। যেখানে তারা ভারতীয় বিদ্যুৎ সঞ্চালন লাইন ও অবকাঠামো ব্যবহার করে হিমালয় অঞ্চলের দেশটি থেকে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ পরিবহনের জন্য একটি আনুষ্ঠানিক চুক্তির বিষয়ে আলোচনা করতে পারেন।

নেপাল-বাংলাদেশ বিদ্যুৎ সঞ্চালনের বিষয়টি এক বছরেরও বেশি সময় ধরে ভারত-নেপাল এবং ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে পৃথক দ্বিপাক্ষিক আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এর আগে, গত বছরের সেপ্টেম্বরে নয়াদিল্লিতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আলোচনার সময় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বিষয়টি উত্থাপন করেছিলেন।

কর্মকর্তারা বলেছেন, ভারত, নেপাল এবং ভুটানের সাথে বাংলাদেশের বিদ্যুৎ বাণিজ্যের ওপর জোর দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎ খাতে একটি উপ-আঞ্চলিক সহযোগিতার পক্ষে কথা বলেছিলেন। এর পাশাপাশি নেপালের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে স্যাঙ্কোশি-৩ বিদ্যুৎ প্রকল্প তৈরি করতে চায় বাংলাদেশ।

সূত্র: ইকোনমিক টাইমস।

%d bloggers like this: